Saturday, February 27, 2021
Home আজকের ফতোয়া বিয়ের আগে মজা করে স্ত্রীকে দিলে তালাক হবে কী?

বিয়ের আগে মজা করে স্ত্রীকে দিলে তালাক হবে কী?

প্রশ্ন: দারুল উলুম দেওবন্দের ওয়েব সাইটে এক ভাই প্রশ্ন করেছেন, বিয়ের আগে একটি লোক মজা করে একটি জায়গায় টাইপ করেছিল যে আমি আমার স্ত্রীকে তালাক দিচ্ছি। বিয়ের পরে যখন তিনি ফাইলটি আবার খুললেন তখন স্ক্রিনে লেখা ছিল যে আমি আমার স্ত্রীকে তালাক দিচ্ছি। লোকটির উদ্দেশ্য তালাক দেওয়া ছিলো না। তবে পুরোনো লেখার দিকে তাকিয়ে টাইপ করা লেখাটা সে পড়লো। এতে কি তার স্ত্রী তালাক হয়ে যাবে?

উত্তর নং: ৬০১৪৬৪। ফতোয়া নং ৩৫৫-২৭১/এল=৪/১৪৪২

শরিয়তের নিয়ম অনুযায়ী তালাক হওয়ার জন্য বিবাহ করা বা বিবি থাকা আবশ্যক। যখন কোনো ব্যক্তি তালাক দিবে, বা তালাকের কথা লিখবে, তখন অবশ্যয় তার বিবি থাকতে হবে। উপরোক্ত ক্ষেত্রে, যেহেতু উল্লিখিত ব্যক্তি বিবাহিত ছিলো না, বা তার কোনো বিবি ছিলো না, তাই তার তালাক পতিত হবে না। যখন সে এ কথাটি লিখেছে ‘আমি আমার স্ত্রীকে তালাক দিচ্ছি’ তখন সে অবিবাহিত ছিলো। সুতরাং, বিবাহের আগে লেখা এ বাক্যটি বিয়ের পর শুধু দেখলেই তালাক হবে না। তালাক হওয়ার জন্য অবশ্যয় স্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে স্পষ্টভাবে তালাকের কথা বলতে হবে অথবা লিখতে হবে। তাহলেই তালাক পতিত হবে।

দলিল-عن أبی ہریرة، قال: قال رسول اللہ صلی اللہ علیہ وسلم: إن اللہ تجاوز لأمتی ما حدثت بہ أنفسہا، ما لم یتکلموا، أو یعملوا بہ(صحیح مسلم 1/ 116،رقم الحدیث: 201،باب تجاوز اللہ عن حدیث النفس والخواطر بالقلب، إذا لم تستقر) ورکنہ لفظ مخصوص(الدر المختار) وفی رد المحتار: ہو ما جعل دلالة علی معنی الطلاق من صریح أو کنایة.[الدر المختار وحاشیة ابن عابدین (رد المحتار) 3/ 230) لو أجری الطلاق علی قلبہ وحرک لسانہ من غیر تلفظ یسمع لا یقع .[حاشیة الطحطاوی علی مراقی الفلاح شرح نور الإیضاح ص: 219)

সূত্র: দারুল উলুম দেওবন্দের ফতোয়া সাইট

বিজ্ঞাপনImage is not loaded
বিজ্ঞাপনImage is not loaded

জনপ্রিয় খবর