Saturday, January 16, 2021
Home ইসলাম প্রতিদিন নতুন বছরের প্রত্যয়: শাইখ আবদুল হাই মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ

নতুন বছরের প্রত্যয়: শাইখ আবদুল হাই মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ

শাইখ আবদুল হাই মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ

১. মিথ্যা বলা বন্ধ করব।
মিথ্যা একটি কাবীরা গুনাহ। মিথ্যাকে সম্পূর্ণরুপে পরিহার করতে চেষ্টা করব। মিথ্যার বিষয়টি যদি সরিষা দানার চেয়েও ক্ষুদ্র হয়, তারপরও মিথ্যা ছেড়ে দিতে চেষ্টা করব, ইনশা- আল্ল-হ্। আমরা সবচেয়ে বেশি কাবীরা গুনাহ করছি মিথ্যা কথা বলেই, দুনিয়াবী প্রয়োজনে অথবা নিছক অপ্রয়োজনে।
আল্ল-হ্ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা বলেন, “…তাদের জন্য রয়েছে যন্ত্রনাদায়ক শাস্তি, কারণ তারা মিথ্যা কথা বলে” (সূরা বাক্বারা ২: ১০), “…তোমরা মিথ্যা কথা বর্জন কর” (সূরা হাজ্জ ২২: ৩০), “…নিশ্চয়ই আল্ল-হ্ সঠিক পথ প্রদর্শন করেন না তাকে যে সীমালঙ্ঘনকারী ও মিথ্যাবাদী” (সূরা মু’মিন ৪০: ২৮)।
২. সালাম ও তার উত্তর শুদ্ধভাবে দিব।
সালাম দেয়া সুন্নাত এবং সালাম শুনে জবাব দেয়া হলো ওয়াজিব।
সালাম আমাদেরকে অন্যের জন্য শান্তির দূত বানাতে চায় এবং অন্যকে ভালবাসতে শিখায়।
আল্ল-হ্ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা বলেন, “তোমাদেরকে যখন অভিবাদন করা হয় তখন তোমরাও উহা অপেক্ষা উত্তম প্রত্যাভিবাদন করিবে অথবা উহারই অনুরূপ করিবে; নিশ্চয়ই আল্ল-হ্ সর্ববিষয়ে হিসাব গ্রহণকারী”। (সূরা নিসা ৪: ৮৬)
সালাম দেয়া ও তার উত্তর দেয়া শুদ্ধ না হলে সালাম দ্বারা শান্তির প্রভাব সমাজে প্রতিষ্ঠিত হবে না।
৩. মুনাফিক এর স্বভাব পরিত্যাগ করব।
শরয়ী পরিভাষায় মুনাফিক সেই ব্যক্তি, যে বাহ্যত নিজেকে মুসলিম বলে প্রকাশ ও দাবী করে, অথচ মনের ভিতর কুফরী ও অবিশ্বাস গোপন করে রাখে। আল্ল-হ্ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা বলেন, “নিশ্চয়ই মুনাফিকরা জাহান্নামের নিম্নতম স্তরে অবস্থিত হবে, তুমি কখনো তাদের জন্য সাহায্যকারী পাইবে না” (সূরা নিসা ৪: ১৪৫)।
.
আবূ হুরাইরা (রদ্বিয়াল্ল-হু আনহু) হতে বর্ণিত। রসূলুল্ল-হ্ (সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছেন, “মুনাফিকের আলামত তিনটিঃ ১. যখন কথা বলে মিথ্যা বলে ২. যখন ওয়াদা করে ভঙ্গ করে এবং ৩. আমানত রাখা হলে খেয়ানত করে”। (বুখারীঃ ৩৩,২৬৮২, ২৭৪৯, ৬০৯৫, মুসলিমঃ ৫৯, তিরমিজীঃ ২৬৩১)
.
রসূলুল্ল-হ্ (সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছেন, “চারটি স্বভাব যার মধ্যে থাকে সে হবে খাঁটি মুনাফিক। যার মধ্যে এর কোন একটি স্বভাব থাকবে, তা পরিত্যাগ না করা পর্যন্ত তার মধ্যে মুনাফিকের একটি স্বভাব থেকে যায়। ১. আমানত রাখা হলে খেয়ানত করে, ২. কথা বললে মিথ্যা বলে, ৩. চুক্তি করলে ভঙ্গ করে এবং ৪. বিবাদে লিপ্ত হলে অশ্লীল গালি দেয়। (বুখারীঃ ২৪৫৯, মুসলিমঃ ৫৮)

বিজ্ঞাপনImage is not loaded
বিজ্ঞাপনImage is not loaded

জনপ্রিয় খবর