শিল্পীদের কণ্ঠে প্রতিবাদের সুর। তারা গেয়েছেন নবির শানে গান। চলমান আন্দোলনে তারা তাদের সুরের লহরী দিয়ে প্রতিবাদ করছেন ফ্রান্সসহ সকল নবি দুশমনদের। বিশ্বনবী মুহাম্মদুর রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম। মুসলমানদের হৃদয় রাজ্যের বাদশাহ। প্রিয় নবির সা. জন্য নিজের জীবন বিলিয়ে দিতেও কুণ্ঠাবোধ করেন না মুসলিম জাতি। ফ্রান্সের সরকার ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ রাষ্ট্রীয়ভাবে নবি অবমাননার বৈধতা দেয়ার চেষ্টা করছে। ফ্রান্সের সাপ্তাহিক পত্রিকা এঁকেছে প্রিয় নবির সা. ব্যঙ্গকার্টুন। এসব নিয়ে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে বিশ্ব মুসলিমের হৃদয়ে। বিক্ষোভ সমাবেশ হচ্ছে বিশ্বজুড়ে। বাংলাদেশে হয়েছে। এখনো হচ্ছে। পিছিয়ে নেই দেশের ইসলামী সাংস্কৃতিক শিল্পীগোষ্ঠীর শিল্পীরাও। প্রতিবাদের সুর শিল্পীদের কণ্ঠেও। তারা রচনা করেছেন নবির শানে নাতে রাসূল। গেয়েছেন প্রিয়নবির নামে গান। শিল্পীদের গাওয়া এমন ১৩টি গান নিয়ে সাজানো হয়েছে আজকের প্রতিবেদন। সাজিয়েছেন আওয়ার ইসলাম টোয়েন্টিফোর ডটকম এর নিউজরুম এডিটর মোস্তফা ওয়াদুদ।


নবি অবমাননার প্রতিবাদে চলমান আন্দোলনে জাতীয় সাংস্কৃতিক সংগঠন কলরব গেয়েছে দুটি গান। গান দুটিই যৌথভাবে গেয়েছে কলরব। তবে সাঈদ আহমদ এর নেতৃত্বে গাওয়া নবিজীর দুশমন গানটি গেয়েছে মুহাম্মদ বদরুজ্জামান, আবু রায়হান, মাহফুজুল আলম, তাওহিদ জামিল, আবির হাসান ও ইমরানুল ফারহান।
লিখেছেন: হুসাইন নূর।
সুর : আহমদ আব্দুল্লাহ
মিউজিক ডাইরেকশন : মুহাম্মদ বদরুজ্জামান।
সাউন্ড ডিজাইন : মাহফুজুল আলম।
রেকর্ড : হলি টিউন স্টুডিও
ভিডিও এডিট ও কালার : তাওহিদ জামিল

গানের কয়েকটি লাইন এমন>

বিশ্ব নবির অপমানে যদি না কাদে তোমার মন
মুসলিম নয় মুনাফিক তুমি নবিজীর দুশমন
নবির প্রেমে জীবন দিবে কে আছো নওজোয়ান
তাকবির তুলে সিংহশাবক হও তুমি আগুয়ান।

তোমার বুকে ঈমানী বল জবানে আল কুরআন।
ভয়ে কাঁপে কাপুরুষ সব আর নরাধম শয়তান

জীবনের চেয়ে বুকে আছে বেশি নবিজীর সম্মান
কেমনে তুমি থাকবে বসে হলে তার অপমান।

তুমি সাচ্চা মুসলমান, ঈমান তোমার ধন
নবির প্রেমে জাগ্রত তুমি নির্বিক পালোয়ান।

কলরবের দ্বিতীয় গানটি গেয়েছে বদরুজ্জামানের নেতৃত্বে।
চলুন গানের কয়েক লাইন পড়ি।

নবির উম্মাত দাবী করো কি করে তুমি?
বলো উম্মাত দাবী করো কি করে তুমি?
রাসূলের অপমানে। কুটুক্তি দেখে শোনে।
কেঁদে না উঠে যদি হৃদয়ভূমি!
নবির উম্মত দাবী করো কি করে তুমি?
বলো উম্মত দাবী করো কি করে তুমি?

নবজাগরণ শিল্পীগোষ্ঠীর পরিচালক আলমগীর বিন কবির গেয়েছে ব্যতিক্রমী একটি সঙ্গীত।

জাগো জাগো সবাই জাগো, বসে থাকলে হবে না।
নবির অবমাননা। সহ্য মোদের হবে না।

জেনে রেখো! ওদের পিঠে আমেরিকার মদদ আছে।
না হয় এই বেয়াদবি ওরা করতে পারে না।
নবির অবমাননা। সহ্য মোদের হবে না।

নবকীরন শিল্পীগোষ্ঠীর শিল্পীরা গেয়েছেন নবিপ্রেমের গান।
গানের কয়েকটি কলি এমন।

মোদের নবি শ্রেষ্ঠ নবি সব নবীর সরদার।
তাকে নিয়ে ব্যঙ্গ করে এতো সাহস কার?
নবিজীকে ব্যঙ্গ করে ছবি যারা আঁকে
বলতো আমায় ঐ শালারা কোন আস্তানায় থাকে।
সবাই মিলে ভেঙ্গে দেব ওদের মাথা ঘাড়।

ইকরা শিল্পীগোষ্ঠী গেয়েছে নবি অবমাননার বিরুদ্ধে প্রতিবাদী গান

ধরার বুকে সইবো না আর বিশ্ব নবির অপমান
আয়রে মোমিন এক হয়ে সব দে হুঙ্কার দে শ্লোগান।
আমরা হলাম নবি প্রেমী। নবি প্রেমে ফিদা
সেই সে প্রেমে ডুব দিতে কেউ করি নাতো দ্বিধা।
ফুঁসে উঠি ঠিক তখনি ক্ষুন্ন কেউ করলে মান।
দে শ্লোগান, তোরা দে শ্লোগান।

শিল্পী : সিয়াম আল হাসান, মারুফ হাসান বেলাল,
কথা : ইসমাইল তকি শাহ,
সুর : সিয়াম আল হাসান,
অডিও ও ভিডিও : টিউন হার্ট স্টুডিও

ইলহাম শিল্পীগোষ্ঠীর গান
গান: কোথায় আছো হামজা খালিদ
কথা: আকরাম মাহদি
সুর: শাকিল মাহদি
পরিবেশনা: ইলহাম শিল্পীগোষ্ঠী
রেকর্ড: ওয়েল টিউন স্টুডিও
এডিট ও কালার: আব্দুর রহমান সাইফি

সঙ্গীতের কয়েক লাইন এমন
কোথায় আছো হামজা খালিদ
ওমর আলী ওসমান
তোমার আমার নবিকে আজ
করছে অপমান

কোথায় আছো যুদ্ধজয়ী বীর আলী হায়দার
প্রতিবাদী হয়ে নেমে পড়ো হাতে নিয়ে জুলফিকার।
আর দেরী নয় রক্ষা করো রাসূলের সম্মান।
তোমার আমার নবিকে আজ করছে অপমান।

উইলাভ মুহাম্মদ। হ্যাভেন টিউন স্টুডিওর পরিচালক আনাস রওশান পরিবেশনা।

রাসূলের অপমানে কাঁদে মন
বুকের ভেতর বহে দুঃখের প্লাবন

টগবগ করে উঠে রক্তকনা
অশান্ত মন যেনো তুলছে ফণা।

দুশমন দুনিয়া। শোনো কান খুলিয়া। নবিজী আমাদের সেরা সম্পদ।
উই লাভ মুহাম্মদ

স্টুডিও ভোকাল থেকে হয়েছে

কত যে বেদনা।
কত যাতনা।
সইতে যে আর পারি না।
ওগো রাসূল! তোমারি দিদারে ব্যকুল।

শিল্পী : আহমাদুল্লাহ সিয়াম

ঐশীধ্বনির কারামাতুল্লাহ মাসউদের পরিবেশনা ছিলো এমন

দেখো চন্দ্রতে
দেখো সূর্যতে
দেখো আসমানে।
দেখো যমীনে
কাউকে পাবে না তাঁর সমতূল।
তিনি মোদেরই রাসূল।

আবু সুফিয়ানের কলরব গেয়েছে নতুন একটি নাত।
নাম : থামনা এবার
শিল্পী: আবু সুফিয়ান
সুর: ইছহাক আলমগীর
কথা: শাহানারা
রেকর্ড: সুরকেন্দ্র স্টুডিও
সাউণ্ড ডিরেক্টর: ইসতিয়াক আহমেদ
ভিডিও ডাইরেক্টর: এম জহিরুল ইসলাম

থামনা এবার সম্পূর্ণ সংগীত

আর করিস না ব্যঙ্গ ওরে
আর দিস না ভাই গালি
মুহাম্মদী হৃদয়পুরে
দিস না আর আগুন জ্বালি।
থাম না এবার ঘাম না এবার
কর রে একটু ভয়
মুহাম্মাদের অবমাননায়
আসমানী ঝড় বয়।
দুর্ভাগাদের নির্বোধ দলে
কত থাকবি পড়ে হায়!

আয় রে এবার আয়..
মুহাম্মাদী নিশানায়
আয়রে এবার আয়..
মোহাম্মাদের ছায়ায়

কসম খোদার এলে একবার দেখো
কালেমার ছায়াতলে
মুহাম্মাদী প্রেমের তোড়ে তোর
হৃদয়টা যাবে গলে।
উস্কানি আর উগ্রতারা
সব পালাবেই দেখে নিস
মুহাম্মদী খুশবোটা যদি তুই
চোখে মুখে মাখিস।

রক্তখেলা রঙ্গশালা
আর ধ্বংসের যতো বীণ
মুহাম্মদী ঝলক লেগে সব
হয়েই যাবে বিলীন।
ঘৃণারা নেবে ভালোবাসায় রূপ
ওঠবে দ্বীনের চাঁদ
কণ্ঠে যদি তুলিস প্রিয়নাম
নবী মুহাম্মাদ।

নবীপ্রেমীদের কলিজায় আঘাত
করিস না রে আর ভাই
নবীর অবমাননায় আমরা
উন্মাদ হয়ে যাই।
বেপরোয়া হয়ে ওঠি রে আমরা
এ প্রেমে আঘাত এলে
নবী মুহাম্মাদ এমনই প্রেম
দিয়ে গেছেন ঢেলে।

নবতরী শিল্পীগোষ্ঠীর শিল্পীরা গেয়েছে এভাবে

দুনিয়ার মুসলিম হাতে হাত রেখে সব এক হও।
আলী জুলফিকার, হাতে তুলে নাও আবার
শহিদী তামান্না নিয়ে বের হও।

ফ্রান্সের মাটিতে মুসলমানের
প্রাণের নবিকে ব্যঙ্গ করায়
আগুন লেগেছে তাই
নবিপ্রেমিকের কলিজাতে
আর রক্ত শিরায়।
ফ্রান্সকে উড়িয়ে দিতে
উচিত শিক্ষা দিতে
যুদ্ধের দামামা বাজাও।
বিশ্ব মানচিত্র থেকে
ফ্রান্সের নাম মুছে দাও।

গান: বিশ্ব মানচিত্র থেকে ফ্রান্সের নাম মুছে দাও
শিল্পী: নাজিম উদ্দিন আনসারী,ও নবতরী টিম
কথা ও সুর : নাজিম উদ্দিন আনসারী
প্রোডাকশন : নবতরী সাংস্কৃতিক ফোরাম রেকর্ড লেবেল- সাউন্ড আর্ট
সাউন্ড ডিজাইন : যাইনুল আবেদীন
দিক নির্দেশনায়: ইয়াসীন আরাফাত আনন্দিপুরী

তাহযীব শিল্পীগোষ্ঠীর পরিবেশনা ছিলো এমন

মুহাম্মদ সা. কে ব্যঙ্গ করে হাত দিয়েছে আগুণে
খসরু পারভেজ ধ্বংস হলো
ম্যাক্রোঁ হাঁটছে সেই পথে।

নাম: হাত দিয়েছে আগুণে
শিল্পী: মাসুদুর রহমান, আল আমিন আজাদ, তাওহিদুল ইসলাম
কথা : ইহতেশাম শামসি
সুর: মাসুদুর রহমান
রেকর্ড: সাউণ্ড আর্ট স্টুডিও
সাউণ্ড ডিজাইন: যায়নুল আবেদীন
ভিডিও: কে মাল্টিমিডিয়া