শিখোবাংলায়.কম: ভারতের ঐতিহাসিক দীনি বিদ্যাপীঠ দারুল উলুম দেওবন্দসহ ভারতের সব মাদরাসা খুলে দেয়ার মৌখিক অনুমতি দিয়েছে সরকার। তবে আনুষ্ঠানিক অনুমতি আসলেই পাঠদান শুরু হবে বলে জানিয়েছে দেওবন্দ মাদরাসা কর্তৃপক্ষ।

দেওবন্দ ভিত্তিক নিউজ ইসলামিক মিডিয়া জানায়, করোনার কারণে বন্ধ থাকা ভারতের কওমি মাদরাসাগুলো খুলতে সরকারের পক্ষ থেকে মৌখিক অনুমতি এসেছে। তবে এখনো আনুষ্ঠানিক অনুমতিপত্র আসেনি। অনুমতি আসলেই পাঠদান শুরু করার কথা জানিয়েছে দেওবন্দ মাদরাসা।

আজ বৃহস্পতিবার দারুল উলূম দেওবন্দের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক জরুরি সভা শেষে এ তথ্য জানানো হয়। বৈঠকে মাদরাসা খোলার বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনার পর দারুল উলূম দেওবন্দ জেলা প্রশাসক, জেলা সাহারানপুরের অফিসারকে একটি লেটারপ্যাড প্রেরণ করেছেন। সভায় দারুল উলূম দেওবন্দের শাইখুল হাদিস আল্লামা সৈয়দ আরশাদ মাদানী, দারুল উলূম দেওবন্দের মুহতামিম মাওলানা মুফতি আবুল কাসিম নোমানী, দারুল উলূম দেওবন্দের শিক্ষক মাওলানা ওসমান কাসেমী, দারুল উলূম দেওবন্দের নায়েবে মুহতামিম মাওলানা আবদুল খালিকসহ অন্যান্য উস্তাদগণ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে এ মাসের শুরুতে সাহারানপুর দেওবন্দের এসপি ‘দেহাত কুমার আশক মিনা’ দারুল উলুম দেওবন্দ পরিদর্শনে এসে দারুল উলুমের মুহতামিম, মুফতি আবুল কাসেম নোমানীর সঙ্গে সাক্ষাত করেন। সে সময় মাদরাসার কর্তৃপক্ষ মাদরসাা খোলার বিষয়ে সরকারের অনুমতি চায়। এর পরিপ্রেক্ষিতে মাদরাসা খোলার বিষয়ে সরকার মৌখিক অনুমতি প্রদান করে। সূত্র:ইসলামিক মিডিয়া