ওমরাহ পালনকারীদের জন্য মিকাতে প্রস্তুতি সম্পন্ন

25

মুহাম্মদ বিন ওয়াহিদ: ওমরাহ পালনকারীদের জন্য মিকাতে যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে সৌদি সরকার। মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দেশটির ইসলামিক বিষয়, দাওয়াহ ও গাইড বিষয়ক মন্ত্রী ড. আবদুল লতিফ আল-শেখ বলেছেন, ওমরাহ পালনকারীদের জন্য আমাদের প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন। শীঘ্রই হাজীদের স্বাগত জানানো হবে।

তিনি বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনার সংক্রমণ ও বিস্তার রোধকল্পে নানা ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে সৌদি সরকার। সংশ্লিষ্ট এজেন্সিগুলোর দ্বারা পূর্ণ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করা হবে।

আরব নিউজ উর্দু এ মন্ত্রীর বরাতে আরও জানিয়েছে, ধাপে ধাপে ওমরাহ পালনের রাজকীয় সিদ্ধান্ত গ্রহণের পর থেকে ওমরাহ পালনে আগ্রহী সৌদি নাগরিক এবং দেশটিতে অবস্থানরত অভিবাসীসহ বিদেশি হজযাত্রীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য যাবতীয় আয়োজন সম্পন্ন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, যারা ওমরাহ বা হজে যান তাদের নির্দিষ্ট জায়গা থেকে ইহরামের কাপড় পরতে হয় এবং সেখান থেকে নিয়ত করে মসজিদে হারামে যেতে হয়। নির্ধারিত এই জায়গাগুলোকেই মিকাত বলা হয়।

করোনার সংক্রমণ ও বিস্তার রোধে দীর্ঘ ছয় মাস হজ ও ওমরাহ পালনে নিষেধাজ্ঞা থাকার পরে নির্দিষ্ট কিছু নিয়ম মেনে অবশেষে আগামী ৪ অক্টোবর থেকে হাজিদের জন্য হারামাইন শারিফাইনকে উন্মুক্ত করতে যাচ্ছে দেশটি।

আরব নিউজ জানিয়েছে, মোট তিন ধাপে এবারের ওমরাহ পালিত হবে। প্রথম দুটি ধাপের পর তৃতীয় ধাপে গিয়ে ওমরাহ পালন স্বাভাবিক করা হবে। প্রথম ধাপে একজন ওমরাহ পালনকারী মাত্র তিন ঘণ্টা সময় পাবেন। অর্থাৎ নির্ধারিত এলাকায় প্রবেশ ও ওমরাহ পালন শেষে বের হওয়া পর্যন্ত তিন ঘণ্টা সময় বরাদ্দ থাকবে।

প্রথম ধাপে প্রতিদিন ছয় হাজার লোক ওমরাহ পালন করতে পারবেন। ওমরাহ পালনের দ্বিতীয় ধাপ শুরু হবে আগামী ১৮ অক্টোবর। তখন মসজিদে হারামের ধারণ ক্ষমতার ৭৫ শতাংশ তথা ১৫ হাজার লোক ওমরাহ পালন করতে পারবেন।

তৃতীয় ধাপ শুরু হবে আগামী ১ নভেম্বর থেকে। তখন বিদেশি নাগরিকরাও ওমরাহ পালনের অনুমতি পাবেন। এ ধাপে এক সঙ্গে ২০ হাজার এবং প্রতিদিন ৬০ হাজার লোক ওমরাহ পালন করতে পারবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here