আমির নির্বাচনে দ্রুত সময়ের মধ্যে হেফাজতের সম্মেলন: বাবুনগরী

25

শিখো বাংলায়: দ্রুত সময়ের মধ্যে হেফাজতে ইসলামের সম্মেলন ডাকা হবে বলে জানিয়েছেন সংগঠনের মহাসচিব দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারীর মুহাদ্দিস আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

আজ শনিবার দুপুরে হাটহাজারী মাদ্রাসায় মসজিদের মাইকে তিনি এ ঘোষণা দেন। বিষয়টি নিয়ে আজ শনিবার বাদ আসর শুরা সদস্যদের বৈঠকে বসার কথাও জানান তিনি।

এ বিষয়ে আল্লামা বাবুনগরী বলেন, আমাদের মুরুব্বি ছিলেন আল্লামা শফী হুজুর। উনার জন্য আমরা দোয়া করছি। আপনারা জানেন, হেফাজতে ইসলামে কোনো বিরোধ নেই। হুজুরের (আল্লামা শফী) মৃত্যুতে হেফাজতে ইসলামের আমির পদটি শূন্য হয়েছে। আমরা হুজুরের জানাজা ও দাফন সম্পন্ন করে দ্রুত সময়ের মধ্যে সম্মেলনের ডাক দেব। সেই সম্মেলনে সর্বসম্মতিক্রমে আমরা হেফাজতে ইসলামের পরবর্তী আমীর নির্বাচন করব বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

গতকাল শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাতে এক প্রেসি ব্রিফিংয়ে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, হেফাজত ইসলামের পরবর্তী আমীর কাউন্সিলের মাধ্যমে নির্বাচিত হবেন। এ সময় তিনি জানান, হাটহাজারী মাদ্রাসার পরিস্থিতি বর্তমানে স্বাভাবিক আছে।

আল্লামা আহমদ শফীর মৃত্যুতে সংগঠনের কার্যক্রমে কোনো প্রভাব পড়বে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, প্রভাব তো কিছুটা পড়বেই। ওনার মতো মানুষ তো আর পাওয়া যাবে না।

তিনি বলেন, ‘এখন আমার দায়িত্ব হলো কাউন্সিল ডাকা। কাউন্সিলেই সিদ্ধান্ত হবে সংগঠনের পরবর্তী আমীর কে হবেন।’

উল্লেখ্য, ২০১০ সালের ১৯ জানুয়ারি দারুল উলুম হাটহাজারী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ওলামা সম্মেলনে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ গঠন করা হয়। এর পর থেকে সংগঠনটি দেশ ও দেশের স্বাধীনতা এবং ইসলামের পক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here